Ad
Ad
Ad

বেনারসি শাড়ির অজানা ৮ টি তথ্য

 

নারিতে শাড়ি; শাড়ি পরলে নারীকে অন্যরকমই সুন্দর লাগে।এবং নারীদের অন্যতম পছন্দের একটি শাড়ি হলো বেনারসী। বিশেষ করে বিয়েতে বেনারসি শাড়ি বেশি দেখা যায়।

এই বেনারসি শাড়ির ইতিহাস কয়জনইবা জানি; চলুন জেনে আসা যাক:

বেনারসি শাড়ির অজানা তথ্য

(১)বেনারসি শাড়ির উৎপত্তিস্হল হলো ভারতের “বেনারশ” শহর।এই শাড়ি মানবচলিত একটি যন্ত্রের সাহায্যে তৈরি করা হয় যাকে বলা হয় “তাত”

(২)যারা “তাত” যন্ত্রের সাহায্যে শাাড়ি বানাতো তাদেরকে বলা হতো তাঁতি। তাঁতিদের পুর্বপুরুষেরা ছিলেন “আনসারী”।  ইসলাম ধর্মের প্রবর্তক হযরত মুহাম্মদ (সঃ)যখন মক্কা থেকে মদিনা যান তখন এই ” আনসারী” সম্প্রদায়ের কাছে আশ্রয় নেন।পরবর্তীতে তারা ইসলাম ধর্ম গ্রহন করেন এবং প্রচারেও অংশ নেয়।মনে করা হয়, বেনারশ শহরের সিংহভাগ তাঁতি সেই “আনসার” সম্প্রদায়ের লোক ছিলেন।

(৩)আরো শোনা যায়,মুম্বাইয়ের বিখ্যাত “দেবদাস” সিনেমার জন্যও মিরপুর থেকে নেয়া হয় “বেনারসি ” শাড়ি

(৪)এই শাড়ি তৈরির মুল উপাদান “কাঁচা রেশম সুতা“। এর পাশাপাশি ব্যবহৃত হয় ” জরি সুতা”;

(৫) বেনারসি শাড়ি অনেকের কাছে “কাতান ” নামেও পরিচিত;

(বেনারসি শাড়ির অজানা তথ্য)

(৬)১৯৯৫ সালের জানুয়ারি মাসে  “বেনারসি পল্লি মিরপুর ” নামে একটি প্রকল্প হাতে নেয়া হয়।

(৭)একটি ভালো বেনারসি শাড়ির দাম তিনহাজার টাকা থেকে তিন লাখ টাকা পর্যন্ত;

(৮)ডিজাইন ও বুনন সহজ হলে একটি শাড়ি তৈরি করতে একজন তাঁতির সময় লাগে প্রায় এক সপ্তাহ। আবার কঠিন ডিজাইন ও নিখুঁত বুননের কাজ করতে তিনজন তাঁতির তিন মাস সময়ও লাগে,

Author:

Hamidur Rahman

(BUFT)

Member of (A.1) Team

You may also read

আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ লাইক করুন। এবং জানতে থাকুন নতুন ও আশ্চর্যজনক তথ্যসমূহ।